‘দেখেন প্রধানমন্ত্রী আমার বোন’

প্রধানমন্ত্রী আমার বোন- গ্রেপ্তার হয়েও তেজ কমেনি ব্যরিস্টার মইনুল হোসেনের। গত রাতে ডিবি অফিসে হুংকার দিয়েছেন। কথা বলতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে।

বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা ছাড়া আমাকে গ্রেপ্তার করার সাহস কারো নেই।’ ডিবি কর্মকর্তাদের তাচ্ছিল্য করে বলেছেন, ‘আমাকে আইন শেখান। মানহানি মামলায় আবার গ্রেপ্তার করা যায় নাকি।’







গত রাতে উত্তরায় জেএসডি নেতা আ.স.ম আবদুর রবের বাসা থেকে গ্রেপ্তার হন ব্যরিস্টার মইনুল হোসেন। গ্রেপ্তার করে তাকে ডিবি অফিসে রাখা হয়। সেখানে রাতভর তিনি হুমকি ধামকি দিয়েই কাটান। ডিবি অফিসে গিয়েই তিনি বলেন, ‘একজনকে একটা মন্তব্য করার জন্য গ্রেপ্তার করা যায় নাকি?’

তিনি বলেন, ‘দেখেন প্রধানমন্ত্রী আমার বোন। কি কারণে তিনি আমার ওপর ক্ষুব্ধ আমি জানি না। অথচ আমাদের সম্পর্ক আত্মীয়তার চেয়েও গভীর। উনি চেয়েছেন, এজন্যই আমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কাজটা আপনারা ঠিক করেননি।’







আজ দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হয়েছে। এরপর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের জামিন আবেদন নাকচ করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

-বাংলা ইনসাইডার