Thursday , November 15 2018

ফেসবুক-ইউটিউবের পর এবার হোয়াটসঅ্যাপেও চালু হচ্ছে বিজ্ঞাপন

সারা বিশ্ব জুড়ে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ১.৫ বিলিয়নের মত৷ সেই সংখ্যাকেই কাজে লাগিয়ে আবারও লাভের মুখ দেখতে চাইছে ফেসবুক অধীনস্থ ম্যাসেজিং অ্যাপটি৷ প্রশ্ন হল, কীভাবে? খুব শীঘ্রই হোয়াটসঅ্যাপ স্টেটাসে ইউজাররা বিজ্ঞাপন দেখতে পাবেন৷ বিজ্ঞাপন বিষয়টি অনেকের কাছেই বিরক্তিকর৷ আর, এবার সেই বিরক্তিকর ফিচারই যোগ হতে চলেছে নিত্যদিনের ব্যবহৃত হোয়াটসঅ্যাপে৷







কিন্তু, ঠিক কবে থেকে স্টেটাস অপশনে অ্যাডের ফিচারটি যোগ হবে? বিষয়টি নিয়ে এখনও কিছু স্পষ্ট করেননি হোয়াটসঅ্যাপের ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্রিস ড্যানিয়েলস৷ রির্পোটের তথ্য জানাচ্ছে, খুব শীঘ্রই ফেসবুকের এই ম্যাসেজিং অ্যাপটির স্টেটাসের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন বিজ্ঞাপনদাতারা৷ ‘স্টেটাস’ অপশনটির মাধ্যমে ইউজাররা ছবি, ছোট ছোট ভিডিও এবং টেক্সট সবই শেয়ার করে থাকেন৷ ইতিমধ্যেই অনেকেরই বেশ পছন্দের ফিচার হয়ে উঠেছে হোয়াটসঅ্যাপ স্টেটাস৷ হোয়াটসঅ্যাপে স্টেটাস শেয়ার করার ২৪ ঘন্টা পরই গায়েব হয় স্টোটসটি৷







দিনের পর দিন ম্যাসেজিং অ্যাপটিকে আপডেট করে চলছে কর্তৃপক্ষ৷ যার জেরে অ্যাপটির জনপ্রিয়তা বেড়েছে বহুগুণ৷ কারণ, গ্রাহকদের চাহিদাকে গুরুত্ব দিয়েই ফিচারগুলি নিয়ে আসা হয়েছে৷ কিন্তু, এর পাশাপাশি রয়েছে অ্যাপটির মন্দদিকও৷ বেশ কিছুদিন আগে অ্যাপটির মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছিল ভুয়ো খবর৷ আর, সেই নিয়ে জলঘোলাও কম হয়নি৷ আর হবে নাই বা কেন? কারণ, এই ভুয়ো খবরের জেরেই প্রাণ হারিয়েছিলেন বহু৷







হোয়াটসঅ্যাপের প্রতিদ্বন্ধী হিসেবে মার্কেটে এসেছে হাজারো ম্যাসেজিং অ্যাপ৷ যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল উইচ্যাট, হাইক ইত্যাদি৷ যেগুলির আকর্ষণীয় ফিচারও গ্রাহক আকর্ষণে প্রাথমিকভাবে সক্ষম হলেও, সময়ের সঙ্গে ভাটা পড়ে সেই জনপ্রিয়তায়৷ উদারহণ হিসেবে বলা যায়, হাইকের কথা৷ ইউজাররা এখানে অফলাইন ম্যাসেজিংয়ের সুযোগ পেতেন৷ আর, এই ফিচারটিই অন্যান্য ম্যাসেজিং অ্যাপগুলির থেকে স্বতন্ত্র করেছিল ম্যাসেজিং অ্যাপটিকে (হাইক)৷