Wednesday , November 14 2018

আফ্রিদির ভাতিজা এখন উগান্ডার মহাতারকা

পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেট মহাতারকা শহীদ আফ্রিদির কথা সবাই জানেন। বিশ্বজুড়ে তার হাজার হাজার ভক্ত আছে। কিন্তু উগান্ডার আফ্রিদির নাম নিশ্চয়ই জীবনেও শোনেননি। এই আফ্রিদি হলেন ইরাফান আফ্রিদি; শহীদ আফ্রিদির ভাতিজা। জন্ম পাকিস্তানে হলেও উগান্ডার অভিবাসন নিয়ে ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগে খেলছেন। স্বপ্ন দেখেন, একদিন চাচার মতোই বিশ্বকাপে খেলবেন।







২০১৩ সালে ২৮ বছর বয়সে উগান্ডায় পারি জমান আফ্রিদি। আফ্রিকান দেশটির জার্সিতে তার অভিষেক ঘটে তিন বছর পর ২০১৬ সালে, কাতারের বিপক্ষে। এরপর থেকেই উগান্ডা ক্রিকেট দলে ভরসার অপর নাম হয় ওঠেন ইরফান। অথচ আশ্চর্যের ব্যাপার, উগান্ডায় পাড়ি জমানোর আগে ইরফানের কখনো ক্রিকেট বলে খেলার অভিজ্ঞতা ছিল না। শুধু কী তাই? ৩৩ বছর বয়সী এই স্পিনার পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটেও তিনি কখনো খেলেননি।







আশ্চর্যের বিষয় হলো, ইরাফান অনেকটাই তার চাচার কপি। যেমন তার বোলিং রানআপ শহীদ আফ্রিদির মতোই। চাচার মতোই তিনি ডান হাতি অফস্পিনার। সেই সঙ্গে ব্যাটসম্যানকে বিপাকে ফেলতে লেগ ব্রেক আর গুগলিও করতে পারেন। দুহাত তুলে হাসতে হাসতে উইকেট নেওয়ার উদযাপনটাও ঠিক আফ্রিদির মতো। তবে চাচার মাথার ঝাঁকাড়া চুলে পাগল হয়েছে হাজারো তরুণী; কিক্তু ৩৩ বছর বয়সী ভাতিজার মাথায় এত চুল নেই।







উগান্ডার হয়ে ইরফানের ৭১ বলে ১০৮ আর ১৭ বলে ৫১ রানের মতো ম্যাচ জেতানো ইনিংস আছে। মানে চাচার মতো হার্ডহিটিংয়েও দারুণ পারদর্শী তিনি। ইরফানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ উগান্ডা জাতীয় দলের অধিনায়ক রজার মুকাসা বলেছেন, ‘ইরফান শুধু বোলিংয়ে উইকেট শিকার করা নয় ব্যাটিংয়েও বল অনেক জোরে মারতে পারে।’