Tuesday , May 21 2019

মনোনয়ন না পাওয়ার শঙ্কায় থাকাদের যা বললেন শেখ হাসিনা

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়ে তা থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কায় থাকাদের সান্ত্বনা দিয়েছেন দলটির সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (২১ নভেম্বর) রাতে মনোনয়ন প্রত্যাশী দুই শতাধিক নেতাকর্মী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবনে গেলে তিনি সমবেতদের উদ্দেশে এসব কথা বলেন। সেখানে উপস্থিত থাকা একাধিক সূত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দল ও জোট থেকে যারা মনোনয়ন পাবেন তাদের বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার নির্দেশও দেন তাদের।







সূত্র জানায়, এদিন সন্ধ্যার সময় মনোনয়ন চেয়ে বঞ্চিত হওয়ার আশঙ্কায় থাকা অনেকে গণভবনে যান। একে একে এ সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) এর জন্ম দিন হওয়ায় এদিন ছিল ছুটির দিন। নেতাকর্মীরা তাদের প্রিয় ‘আপা’র কাছে নিজেদের বক্তব্য, অভিমান, অনুযোগ তুলে ধরার জন্য এ দিনটিকেই বেছে নেন। একসঙ্গে এত নেতাকর্মীর আগমনের খবর পেয়ে শেখ হাসিনাও নিচে নেমে আসেন। সমবেতরা জড়ো হন ব্যাংকুয়েট হলে। শেখ হাসিনা কার কী বক্তব্য আছে তা শুনতে চান। তখন একে একে অনেকেই তার নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রীর সামনে বক্তব্য দেন ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং বরিশাল-২ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহে আলম, ঢাকা-২ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহীন আহমেদ (শাহীন চেয়ারম্যান), মুন্সীগঞ্জ-১ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গোলাম সরওয়ার কবীর, বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক-জাহাঙ্গীর কবির, কুমিল্লা জেলা উত্তরের সাধারণ সম্পাদক-জাহাঙ্গীর আলম, নরসিংদীর শিবপুরের সাবেক এমপি জহিরুল হক ভূঞা মোহন, পাবনা-২ এর সংসদ সদস্য আজিজুল হক আরজু প্রমুখ।

সূত্র জানায়, প্রত্যেকের বক্তব্য শেষে প্রধানমন্ত্রী কমবেশি কথা বলেন। আর সবার বক্তব্য শেষে তিনি সমবেতদের উদ্দেশে বলেন,‘এক একটি আসনে অনেক প্রার্থী। তারপর নির্বাচনি জোটও আছে। জরিপ অনুসারে সবখানে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। নির্বাচনি জোটের কারণেও কিছু আসন ছাড়তে হবে। তাই কেউ মনোনয়ন না পেলে মন খারাপ না করে কাজ করতে হবে। দলের বা জোটের হোক,প্রার্থীকে জিতিয়ে আনতে হবে।’