Wednesday , June 26 2019

৮ বিভাগে এখন পর্যন্ত বিএনপির মনোনয়ন পেলেন যারা

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে মনোনয়নপ্রাপ্তদের দ্বিতীয় দিনের মতো চিঠি দেওয়া শুরু করেছে বিএনপি।

আজ মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) সকাল ১০টায় দ্বিতীয় দিনের মনোনয়নের চিঠি দেওয়া শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা শুরু হয় বেলা সাড়ে ১২টায়। আগের দিনের মতো আজও গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈকি কার্যালয় থেকে চিঠি সংগ্রহ করছেন মনোনয়নপ্রাপ্তরা।

এখন পর্যন্ত বিএনপির মনোনয়ন পেলেন যারা—

ঢাকা বিভাগ
ঢাকা-১: ফাহিমা হোসাইন জুবলী ও খন্দকার আবু আশফাক; ঢাকা-২: আমান উল্লাহ আমান; ঢাকা-৩: গয়েশ্বর চন্দ্র রায়; ঢাকা-৪: সালাহউদ্দিন আহমেদ; ঢাকা-৫: নবীউল্লাহ নবী; ঢাকা-৬: ইশরাক হোসেন ও আবুল বাশার; ঢাকা-৮: মির্জা আব্বাস ও সাজ্জাদ জহির; ঢাকা-৯: মির্জা আব্বাস, আফরোজা আব্বাস ও হাবিবুর রশীদহাবীব-উন নবী সোহেল; ঢাকা-১২: সাইফুল আলম নীরব; ঢাকা-১৩: আবদুস সালাম ও আতাউর রহমান ঢালী; ঢাকা-১৪: আমিনুল হক ও সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিক; ঢাকা-১৬: মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ হাসান; ঢাকা-১৭: মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী; ঢাকা-১৮: এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন ও মো. বাহাউদ্দীন সাদী; ঢাকা-১৯: ডা. দেওয়ান মো. সালাহ্উদ্দিন; ঢাকা-২০: ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান ও সুলতানা আহমেদ।

নরসিংদী-১: খায়রুল কবির খোকন; নরসিংদী-৩: সানাউল্লাহ মিয়া ও মনজুর এলাহী; নরসিংদী-৪: আব্দুল কাদির ভূঁইয়া।

ফরিদপুর-১: শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর; ফরিদপুর-২: শহীদুল ইসলাম বাবুল; ফরিদপুর-৪: শাহরিয়া ইসলাম শায়লা।

গোপালগঞ্জ ২: কে এম বাবর।

রাজবাড়ী-১: আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম।

কিশোরগঞ্জ-১: রেজাউল করিম ও খালেদ সাইফুল্লাহ সোহেল খান।

টাঙ্গাইল-১: ফকির মাহবুব আনাম স্বপন, শহিদুল ইসলাম ও সরকার শহীদুল ইসলাম; টাঙ্গাইল-২: সুলতান সালাউদ্দিন টুকু ও শামছুল আলম তোফা; টাঙ্গাইল-৩: লুৎফর রহমান খান আজাদ ও মাইনুল ইসলাম, টাঙ্গাইল-৪: লুৎফর রহমান মতিন ও আব্দুল হালিম; টাঙ্গাইল-৫: মেজর জেনারেল (অব.) মাহমুদুল হাসান ও ছাইদুল হক ছাদু; টাঙ্গাইল-৬: গৌতম চক্রবর্তী ও নুর মোহাম্মদ খান; টাঙ্গাইল-৭: আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী ও সাঈদ সোহরাব।







মুন্সিগঞ্জ ১: শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন ও মীর সরফত আলী সপু; মুন্সিগঞ্জ-২: শাহ সৈয়দ সরোয়ার।

নারায়ণগঞ্জ-১: তৈমুর আলম খন্দকার, মুস্তাফিজুর রহমান ভুইয়া ও কাজী মনিরুজ্জামান; নারায়ণগঞ্জ-৫: মাকসুদুল আলম খন্দকার।

গাজীপুর-১: চৌধুরী তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী; গাজীপুর-৪: শাহ রিয়াজুল হান্নান।

চট্টগ্রাম বিভাগ
কুমিল্লা-৪: সাহিদা রফিক ও রেজভিউল আহসান; কুমিল্লা-৫: শওকত মাহমুদ ও মো. ইউনুস; কুমিল্লা-৬: হাজি আমিনুর রশিদ ইয়াসিন, মনিরুল হক চৌধুরী, মো. মোস্তাক মিয়া ও সৈয়দ গোলাম মহিউদ্দিন (জমিয়তে উলামায়ের একাংশ); কুমিল্লা-৯: আনোয়ারুল আজিম; কুমিল্লা-১০: শামসুদ্দিন দিদার, মোবাশ্বির আলম ভুইয়া ও মনিরুল হক চৌধুরী।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২: শেখ মো. শামিম; ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩: ড. তৌফিকুল ইসলাম ও খালেদ মাহমুদ শ্যামল; ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬: আব্দুল খালেক ও রফিক সিকদার।

চাঁদপুর-২: মো. জালাল উদ্দিন; চাঁদপুর-৫: মমিনুল হক।

নোয়াখালী-১: মাহবুব উদ্দিন খোকন ও মামুনুর রশীদ; নোয়াখালী-২: জয়নুল আবদিন ফারুক, তামান্না ফারুক থীমা ও জাফর ইকবাল; নোয়াখালী-৩: বরকত উল্লাহ বুলু ও ডা. কাজী মাজহারুল ইসলাম; নোয়াখালী-৪: শাহিনুর বেগম; নোয়াখালী-৫: মওদুদ আহমদ, নোয়াখালী-৬: ফজলুল আজিম।

লক্ষ্মীপুর-১: শাহাদাত হোসেন সেলিম (এলডিপি); লক্ষ্মীপুর-২: আবুল খায়ের ভুইয়া; লক্ষ্মীপুর-৩: শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী; লক্ষ্মীপুর-৪: আশরাফ উদ্দিন নিজান।







ফেনী-১: খালেদা জিয়া; ফেনী-২: জয়নাল আবেদীন (ভিপি জয়নাল); ফেনী-৩: আব্দুল আউয়াল মিন্টু, মো. আকবর হোসেন ও আবদুল লতিফ জনি।

চট্টগ্রাম-১: নূরুল আমিন; চট্টগ্রাম-৩: নুরুল মোস্তফা খোকন; চট্টগ্রাম-৬: গিয়াস উদ্দীন কাদের চৌধুরী ও সামির কাদের চৌধুরী; চট্টগ্রাম-৭: শওকত আলী নুর; চট্টগ্রাম-৯: সাইফুল আলম; চট্টগ্রাম-১৩: মুস্তাফিজুর রহমান।

কক্সবাজার-১: হাসিনা আহমেদ; কক্সবাজার-২: আলমগীর ফরিদ; কক্সবাজার-৩: লুৎফর রহমান কাজল; কক্সবাজার-৪: শাহজাহান চৌধুরী ও মো. সালাহ্উদ্দিন।

বান্দরবান: সাচিং প্রু জেরি ও উম্মে কুলসুম সুলতানা।

রাঙামাটি: দীপেন দেওয়ান ও মনি স্বপন দেওয়ান।

খাগড়াছড়ি: আব্দুল ওয়াদুদ ভূঁইয়া।

বরিশাল বিভাগ
বরিশাল-১: জহির উদ্দিন স্বপন ও ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সোবহান; বরিশাল-২: সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টু ও শহীদুল হক জামাল; বরিশাল-৩: সেলিমা রহমান ও জয়নাল আবেদীন; বরিশাল-৪: মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদ ও রাজিব আহসান; বরিশাল-৫: মুজিবর রহমান সরোয়ার ও এবায়দুল হক চান; বরিশাল-৬: আবুল হোসেন খান ও রশিদ খান।

পটুয়াখালী-১: আলতাফ হোসেন চৌধুরী ও তার স্ত্রী সুরাইয়া আলতাফ চৌধুরী; পটুয়াখালী-২: শহীদুল আলম তালুকদার ও তার স্ত্রী সালমা আলম; পটুয়াখালী-৩: গোলাম মাওলা রনি, হাসান মামুন ও মো. শাজাহান; পটুয়াখালী-৪: এবিএম মোশাররফ হোসেন ও মনিরুজ্জামান মনির।

ভোলা-১: আন্দালিব রহমান পার্থ (বিজেপি); ভোলা-২: হাফিজ ইব্রাহিম; ভোলা-৩: হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, ভোলা-৪: নাজিমউদ্দিন আলম।







ঝালকাঠি-১: শাহজাহান ওমর বীর উত্তম; ঝালকাঠি-২: রফিকুল ইসলাম জামাল, ইসরাত সুলতানা ইলেন ভুট্টো ও জেবা খান।

পিরোজপুর-১: ব্যারিস্টার সারোয়ার হোসেন ও জাতীয় পার্টির মোস্তফা জামাল হায়দার; পিরোজপুর-২: লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান: পিরোজপুর-৩: রুহুল আমিন দুলাল ও কর্নেল (অব.) শাহজাহান মিয়া।

বরগুনা-১: মতিউর রহমান তালুকদার ও নজরুল ইসলাম মোল্লা; বরগুনা-২: নুরুল ইসলাম মনি ও অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব।

সিলেট বিভাগ
সিলেট-২: তাহসিনা রুশদীর লুনা; সিলেট-৩: মো. আবদুস সালাম ও শফি চৌধুরী; সিলেট-৬: অ্যাডভোকেট মাওলানা আব্দুর রকিব (ইসলামী ঐক্যজোট)।

মৌলভীবাজার-১: মো. নাসির উদ্দিন ও এবায়দুর রহমান চৌধুরী; মৌলভীবাজার-২: সুলতান মুহাম্মদ মনসুর (ঐক্যফ্রন্ট); মৌলভীবাজার-৩: রেজিনা নাসের।

সুনামগঞ্জ-১: কামরুজ্জামান কামরুল, সুনামগঞ্জ-২: অ্যাডভোকেট তাহির রায়হান চৌধুরী ও নাসির চৌধুরী, সুনামগঞ্জ-৪: দেওয়ান জয়নুল জাকেরিন।

ময়মনসিংহ বিভাগ
ময়মনসিংহ-১: সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, আলী আজগর, আফজাল এইচ খান ও মো. সালমান ওমর; ময়মনসিংহ-২: শাহ শহীদ সারোয়ার ও আবুল বাশার আকন্দ; ময়মনসিংহ-৩: ডা: আব্দুস সেলিম ও আহাম্মদ তায়েবুর রহমান হিরণ; ময়মনসিংহ-৪: ডা: এ জেড এম জাহিদ হোসেন, আবু ওয়াহাব আকন্দ ওয়াহিদ ও দেলোয়ার হোসেন খান দুলু; ময়মনসিংহ-৫: এ কে এম মোশাররফ হোসেন, জাকির হোসেন বাবলু ও মো. জাকারিয়া; ময়মনসিংহ-৬: ইঞ্জিনিয়ার শামসুদ্দিন আহমেদ ও আখতারুল আলম ফারুক; ময়মনসিংহ-৭: ডা: মাহাবুবুর রহমান লিটন ও আমিন সরকার; ময়মনসিংহ-৮: লুৎফুল্লাহেল মাজেদ বাবু ও শাহ নুরুল কবির শাহীন; ময়মনসিংহ-৯: খুররম খান চৌধুরী ও ইয়াসের খান চৌধুরী; ময়মনসিংহ-১০: এ বি সিদ্দিকুর রহমান ও আখতারুজ্জামান বাচ্চু; ময়মনসিংহ-১১: ফখরউদ্দিন আহমেদ বাচ্চু।







নেত্রকোনা-১: ব্যারিস্টার কায়সার কামাল; নেত্রকোনা-২: আশরাফ উদ্দিন ও এটিএম আব্দুল বারী; নেত্রকোণা-৩: রফিকুল ইসলাম হেলালী ও দেলোয়ার হোসেন ভূইয়া; নেত্রকোণা-৫: রাবেয়া খাতুন ও আবু তাহের তালুকদার।

শেরপুর-১: মো. হযরত আলী; শেরপুর-২: একেএম মোখলেসুর রহমান রিপন; শেরপুর-৩: মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল ও মাহমুদ রুবেল।

জামালপুর-১: রশিদুজ্জামান মিল্লাত/আব্দুল কাইয়ুম; জামালপুর-৩: মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল; জামালপুর-৪: ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম; জামালপুর-৫: অ্যাডভোকেট ওয়ারেছ আলী মামুন।

রংপুর বিভাগ
দিনাজপুর-১: মঞ্জুরুল ইসলাম ও মামুনুর রশিদ; দিনাজপুর-২: সাদিক রিয়াজ; দিনাজপুর-৩: সৈয়দ জাহাঙ্গীর ও মোজাম্মেল হোসেন দুলাল; দিনাজপুর-৪: হাফিজুর রহমান ও আক্তারুজ্জামান মিয়া; দিনাজপুর-৫: রেজাউল হক ও এসএম জাকারিয়া বাচ্চু; দিনাজপুর-৬: লুৎফর রহমান মিন্টু ও শাহীনুর ইসলাম মন্ডল।

পঞ্চগড়-১: ব্যারিস্টার নওশাদ জমির ও তৌহিদুল ইসলাম; পঞ্চগড়-২: জাহিদুর রহমান, ফরহাদ হোসেন আজাদ ও ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান (জাগপা)।

ঠাকুরগাঁও-১ : মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর; ঠাকুরগাঁও-২: মো. আবদুস সালাম ও জুলফিকার মুর্তাজা চৌধুরী তুলা; ঠাকুরগাঁও-৩: জাহিদুর রহমান ও জিয়াউল ইসলাম জিয়া।

গাইবান্ধা-৩ : রওশন আরা খাতুন।

লালমনিরহাট-২ : সালাউদ্দিন হেলাল; লালমনিরহাট- ৩: আসাদুল হাবিব দুলু।

রংপুর-১: মোকাররম হোসেন সুজন ও ওয়াহেদুজ্জামান মাবু; রংপুর-২: মোহাম্মদ আলী; রংপুর-৩: মোজাফফর হোসেন ও রিটা রহমান; রংপুর-৪: আমিনুল রহমান রাঙা ও এমদাদুল হক ভরসা; রংপুর-৫: সোলাইমান আলম, ডা. মমতাজ ও শাহ মো. সোলায়মান আলম; রংপুর-৬: সাইফুল ইসলাম।







রাজশাহী বিভাগ
বগুড়া-১: কাজী রফিকুল ইসলাম ও মো. শোকরানা; বগুড়া-৩: আবদুল মুহিত তালকদার ও মাসুদা মোমেন; বগুড়া-৫: গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ ও জানে আলম খোকা; বগুড়া-৬ :খালেদা জিয়া; বগুড়া-৭: খালেদা জিয়া।

রাজশাহী-১: মো. আমিনুল হক; রাজশাহী-২: মিজানুর রহমান মিনু ও সাঈদ হাসান; রাজশাহী-৩: এ কে এম মতিউর রহমান মন্টু ও শফিকুল হক মিলন; রাজশাহী-৪: মো. নাদিম মোস্তফা, মো. আবু হেনা, মো. নুরুজ্জামান খান মনির ও মো. আ গফুর; রাজশাহী-৬: আবু সাঈদ চাঁদ, মো. নুরুজ্জামান খান মানিক ও দেবাশীষ রায় মধু।

জয়পুরহাট-১ : ফয়সাল আলীম ও মো. ফজলুর রহমান; জয়পুরহাট-২ : মো. খলিলুর রহমান ও ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা।

নওগাঁ-১ : ডা. সালেক চৌধুরী ও মোস্তাফিজুর রহমান, নওগাঁ- ২: শামসুজ্জামান খান ও খাজা নজিব উল্লাহ চৌধুরী; নওগাঁ-৩ : রবিউল আলম বুলেট ও পারভেজ আরেফীন সিদ্দিকী; নওগাঁ-৪: শামসুল আলম প্রামানিক ও ডা. একরামুল বারী টিপু ; নওগাঁ-৫ : জাহেদুল ইসলাম ধলু ও নজমুল হক সনি; নওগাঁ-৬: আলমগীর কবির ও শেখ রেজাউল ইসলাম রেজু।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১: মো. শাহজাহান মিয়া ও বেলালী বাকী ইদ্রিসি; চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২: আনারুল ইসলাম; চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩: আব্দুল ওয়াহেদ ও হারুনর রশীদ।

সিরাজগঞ্জ-১ : কনক চাঁপা ও নাজমুল হাসান রানা; সিরাজগঞ্জ-২ : ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও তার স্ত্রী রুমানা মাহমুদ; সিরাজগঞ্জ-৩ : আব্দুল মান্নান তালুকদার ও আইনুল হক; সিরাজগঞ্জ-৪, মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান (জামায়াত); সিরাজগঞ্জ-৫: রকিবুল করিম খান পাপ্পু, মেজর (অব.) মনজুর কাদের ও আমিরুল ইসলাম খান আলিম; সিরাজগঞ্জ-৬: কামরুদ্দিন ইয়াহিয়া খান মজলিশ ও এম এ মুহিত।

নাটোর-১ : কামরুন্নাহার শিরিন ও তাইফুল ইসলাম টিপু; নাটোর-২: রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন ছবি; নাটোর-৩ : দাউদার মাহমুদ ও আনোয়ার ইসলাম আনু; নাটোর-৪ : আব্দুল আজিজ।







পাবনা-২ : এ কে এম সেলিম রেজা হাবিব; পাবনা-৩ : কে এম আনোয়ারুল ইসলাম; পাবনা-৪: হাবিবুর রহমান হাবিব ও সিরাজুল ইসলাম; পাবনা- ৫: শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস ও মামুনুর রশীদ খান।

খুলনা বিভাগ
খুলনা-৪: মুফতি রেজাউল করিম (জমিয়তে উলামায়ের একাংশ)।

ঝিনাইদহ-৩: মনির খান।

যশোর-২: সাবিরা সুলতানা; যশোর-৫: মুফতি মো. ওয়াক্কাস (জমিয়তে উলামায়ের একাংশ)।

মেহেরপুর-১: মাসুদ অরুন; মেহেরপুর-২: আমজাদ হোসেন।

কুষ্টিয়া-১: রেজা আহমেদ; কুষ্টিয়া-২: ফরিদা ইয়াসমিন ও মুহাম্মাদ আহসান হাবিব লিংকন [জাতীয় পার্টি (জাফর)]; কুষ্টিয়া-৩: অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন; কুষ্টিয়া-৪: মেহেদি আহমেদ রুমি।

সাতক্ষীরা-১: হাবিবুর রহমান হাবিব; সাতক্ষীরা-৪: কাজী আলাউদ্দিন।

নড়াইল-২: চেয়ারম্যান ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ (এনপিপি)।