Tuesday , January 22 2019

অমুসলিমের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা জায়েজ?(ভিডিও)

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ২২২০তম পর্বে অমুসলিমদের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা জায়েজ কি না, সে বিষয়ে ই-মেইলে জানতে চেয়েছেন নাসিউল ইসলাম। অনুলিখন করেছেন জান্নাত আরা পাপিয়া।

প্রশ্ন : অমুসলিম ও হিন্দুদের থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা জায়েজ আছে কি? হিন্দুদের সঙ্গে পাশাপাশি একই বেঞ্চে বসে লেখাপড়া করা এবং লেখাপড়ার বিষয় শেয়ার করা ইসলাম সমর্থন করে কি?

উত্তর : কোনো জ্ঞান যদি আপনি নিতে চান, সেটা মুসলিম বা অমুসলিম যার কাছ থেকেই হোক, এই পার্থক্য করার প্রয়োজন নেই। জ্ঞানের অনেকগুলো দিক আছে। সুতরাং, এই বিশাল দিগন্ত থেকে কোনো এক বিষয়ে যদি আপনি কোনো এক অমুসলিমের কাছে থেকে জ্ঞান নেন, এতে কোনো অসুবিধা নেই।

নবী (সা.) যখন মদিনায় আসেন, তখন মদিনাবাসীর কাছ থেকে তিনি তাবিরের জ্ঞান নিলেন। তাবির হচ্ছে, খেজুর গাছের যে পরাগায়ন করা হয়, সেই পদ্ধতি। আবার সালমান ফার্সির (রা.) কাছ থেকে জ্ঞান নিলেন, কীভাবে পরিখা খনন করা হয় যুদ্ধের সময়।

তাই যেখানে আপনি দেখবেন জ্ঞানের বিষয় রয়েছে এবং সেটি আপনার প্রয়োজন, সেটার শিক্ষা গ্রহণ করা নাজায়েজ কিছু নয়। এ কথা চিন্তা করার সুযোগ নেই যে তিনি মুসলিম, না অমুসলিম। অমুসলিম হলেও আপনি তার কাছে থেকে জ্ঞান অর্জন করতে পারেন।

শুধু একটা বিষয়ে আপনি জ্ঞান নিতে পারবেন না, সেটা হচ্ছে দ্বীনের বিষয়। দ্বীনের জ্ঞান তাদের কাছ থেকে গ্রহণ করতে পারবেন না। যেহেতু দ্বীনের বিষয়ে তাদের কাছে জ্ঞানই নেই। সেটার ওপর তাদের বিশ্বাস নেই। দ্বীনের জ্ঞান নিতে হবে দ্বীনদার ব্যক্তির কাছ থেকে। আর অন্য বিষয়ে জ্ঞান নিতে হবে জ্ঞানী ব্যক্তিদের কাছ থেকে।

ভিডিও দেখুনঃ