Tuesday , January 22 2019

আর ত্বক ফর্সা করা ক্রিম লাগাতে পারবে না এই দেশের মহিলারা!

পৃথিবীতে মহিলারা যতই এগিয়ে যাক। পৃথিবী যতই তাদের গুন্, বিদ্যার কাছে মাথা নত করুক। তারা নিজেদের চেহারার দিক থেকে সুন্দর দেখানোর প্রতিযোগিতা থেকে আলাদা হতে পারেন না। আর তাই বাজারে রমরমা প্রসাধনী ব্যবসা।

বিশেষত ত্বক ফর্সা হওয়ার ক্রিমের তো কোথায় আলাদা। বিশ্ব জুড়ে মহিলাদের কাছে এটি হট কেক। আধুনিক যুগে এসে প্রসাধনী ছাড়া মহিলারা নিজেদের সৌন্দর্যের কথা কল্পনা করতে পারে না। কিন্তু যদি সেই ত্বক ফর্সাকারী ক্রিমই যদি নিষিদ্ধ হয়ে যায়! তাহলে তো মাথায় বজ্রপাত পড়াটাই স্বাভাবিক। এমনটাই হয়েছে পূর্ব আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডায়। এই দেশে ত্বক ফর্সাকারী ক্রিমসহ সকল প্রসাধনীর ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে সরকার।

রুয়ান্ডা সরকার দেশটিতে ত্বক ফর্সাকারী প্রসাধনী ব্যবহারসহ এ জাতীয় পণ্য উত্‍পাদন ও আমদানি নিষিদ্ধ করেছে। আর এতেই গর্জে উঠেছে দেশের মহিলা সমাজ। অনেকেই সরকারের এমন নিষেধাজ্ঞার সমালোচনা করছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও এর ক্ষতিকারক দিক নিয়ে আলোচনা হচ্ছে।

অনেকের আশঙ্কা, এই নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে রুয়ান্ডা সরকার মহিলাদেরকে অবৈধভাবে উত্‍পাদন ও আমদানি হওয়া ভেজাল প্রসাধনী ব্যবহারের পথ তৈরি করে দিল। যা তাদেরকে নানারকম শারীরিক রোগ সংক্রমণের ঝুঁকির মুখে ঠেলে দেবে। উল্লেখ্য, আফ্রিকার দেশগুলোতে প্রতিবছর কোটি কোটি টাকার প্রসাধনী বিক্রি হয়।