Wednesday , February 20 2019

যৌনপল্লীতে নয়, অভিজাত এলাকাতেই রমরমিয়ে দেহ ব্যবসা

যৌনপল্লী বললে এক একজন মানুষের মধ্যে এক একরকম প্রতিক্রিয়া হয় ৷ কেউ শারীরিক চাহিদা মেটানোর জন্য সেখানে যান কেউ আবার শহরের যে সব নির্দিষ্ট প্রান্তে যৌনপল্লী আছে সেটা এড়িয়ে যান ৷

কিন্তু এখন আর সেটা করার জো থাকবে না৷ এখন শহরের বিভিন্ন অভিজাত এলাকাতেও রমরমিয়ে চলছে দেহব্যবসা৷ হায়দরাবাদে এই পেশা এতটাই জাল বিস্তার করেছে যে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে হিমসিম খেয়ে যাচ্ছে পুলিশ৷ ২০১৩ থেকে বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও সংবাদপত্রে দেহব্যবসার বিজ্ঞাপন দেওয়া হচ্ছে রাখঢাক না রেখে৷ তার মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক Wikisexguide.com ৷ এমনটাই জানাচ্ছে রাচকোন্ডা স্পেশাল অপরাশেনস টিম এই ওয়েবসাইটকে নিয়ে হিমসিম নিজেদের বিজ্ঞাপনে অর্ধনগ্ন মহিলাদের ছবি দিয়ে শুরুটা হয়৷ আগ্রহী ক্লায়েন্টরা ফোনে যোগাযোগ করলে তাদের ৫০ শতাংশ পেমেন্ট দিয়ে দিতে হয়৷ এরপর ক্লায়েন্টের সুবিধাজনক সময়ে যোগাযোগ করে নেওয়া হয়৷

হোয়াটস অ্যাপে চ্যাটের পর কোথায় বিষয়টা হবে সেটা ঠিক হয়৷ কাস্টমার নিজের পছন্দের মহিলা বেছে নিলে তিনি অ্যাপ ক্যাবে এসে তাঁকে তুলে নেন৷ এদের সঙ্গে যাঁরা যোগাযোগ করান তাঁদের সার্ভিস প্রোভাইডারও বলা হয়৷ এদের দাবি থাকে পৃথিবীর কোনও প্রান্তে যে ধরণের পরিষেবা থাকে তার চেয়ে এটা আরও আলাদা হবে৷ পুলিশ জানাচ্ছে বিভিন্ন জায়গায় তারা এই চক্রকে আটকানোর জন্য তারা নিয়মিত রেড করছেন৷ বিভিন্ন জায়গা থেকে ধরপাকড়ও চলছে৷ আসলে এভাবে দেহ ব্যবসার লাগামছাড়া বৃদ্ধিতে বেশ নাজেহাল হায়দরাবাদ পুলিশ৷