Sunday , May 26 2019

আসছে বিশ্বকাপে নিজের ওপেনিং পার্টনার যাকে চান তামিম ইকবাল

ইনজুরির কারণে বর্তমানে বিশ্রামে আছেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। যার কারণে নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়ানডে সিরিজে যোগ দেওয়া হয়নি তার। ইনজুরি কাটিয়ে কিউইদের বিপক্ষে ২য় টেস্টে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে সাকিবের।

অন্যদিকে সাকিবের অপূর্নতায় একাদশ সাজাতে গিয়ে রুবেলকে দলের বাহিরে রাখতে হচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্টকে। অলরাউন্ডার সাকিবের ঘাটতি পূরণের জন্য বোলিং অলরাউন্ডার সাইফুদ্দিনের উপর ভরসা রাখতে হচ্ছে বাংলাদেশকে।কিন্তু রুবেল ও সাকিবের ঘাটতি নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বেশ হারে হারেই টের পাচ্ছে টাইগার ক্রিকেট দল। টু ইন ওয়ান সাকিব আল হাসানের ১০ ওভার বোলিং ও ব্যাটিংয়ের বড় অভাব টের পাচ্ছে টাইগাররা।

অন্যদিকে টাইগারদের ব্যর্থতায় রুবেলের পেসকেও বেশ মিস করছে টাইগার সর্মথকরা। নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ডের মতো পেস সহায়ক উইকেটে রুবেলের গতি বেশ কাজে লাগাতে পারতো বাংলাদেশ দল এমনটাই মনে করছে তারা।নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের কেবল ১টি ম্যাচ বাকি। ইতিমধ্যে প্রথম ২ ওয়ানডে হেরে সিরিজ হাতছাড়া করেছে টাইগাররা। প্রথম দুই ওয়ানডেতে একাদশে জায়গা না পাওয়া রুবেলকে শেষ ম্যাচে একাদশে দেখা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে একাদশ থেকে বাদ পড়বেন কে তা নিয়েও তৈরি হয়েছে প্রশ্ন!

সামনেই ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। মে মাসের শেষের দিকে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশের হাতে সময় আছে এখন কেবল ২-৩ মাস। এর মধ্যেই বিশ্বকাপ দল গোছাতে হবে টাইগারদের।কিন্তু কিউইদের বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচেই ভরাডুবির পর বিশ্বকাপে টাইগার একাদশ নিয়ে তৈরি হয়েছে বহু প্রশ্ন। এমনিতেই দলের বাহিরে আছেন সাকিব অন্যদিকে বিপিএলে দূর্দান্ত পারফম করা রুবেলও জায়গা পাচ্ছেন না নিয়মিত একাদশে। এ দুজনের বাহিরেও রয়েছে আরেক দূর্ভাগা ওপেনার ইমরুল কায়েসের নাম। ওপেনিংয়ে লিটন, সৌম্যদের চেয়ে পরিসংখ্যান ও পারফম্যান্সের বিচারে এগিয়ে থেকেও দলে জায়গা হচ্ছে না তার।

এই সকল বিতর্ক ঠেলে দিয়ে এখন প্রশ্ন উঠেছে রুবেল ও সাকিব নিয়মিত একাদশে ফিরলে টাইগারদের এই একাদশ থেকে বাদ পড়বেন কোন ২ জন?একটু হিসেব মিলিয়ে দেখা যাক। ওপেনিংয়ে টাইগার একাদশে প্রথম পছন্দ তামিম ইকবাল। দেশসেরা এই ওপেনারের সঙ্গী হিসেবে অনেককেই ঘুড়িয়ে ফিরিয়ে দেখা হয়েছে। কিন্তু কেউই সফল হতে পারেননি।

তবে তামিমের কন্ঠে রয়েছে ভিন্ন সুর,তামিম বলেন, ‘সাদমানের ব্যাটিং আমার কাছে ভালো লেগেছে। দুর্ভাগ্য যে ২০-২৫ রানে আউট হয়ে যাচ্ছে। চারটা ইনিংস দেখে মনে হয়েছে অনেক কম্প্যাক্ট। তবে সে এমন জায়গায় খেলছে, এখানে ভালো করা সহজ নয়।’

টেস্ট ক্রিকেটে নতুন সাদমানের ব্যাটিং সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমরা যারা ১০-১২ বছর ধরে খেলছি। নিউজিল্যান্ডে এটা আমার তৃতীয় সফর। একটু হলেও জানি এখানে কী করণীয়। ও সেখানে ক্যারিয়ারের তৃতীয় টেস্ট খেলছে। ও এখানে যে নিঁখুত ব্যাটিং করছে, এটা ইতিবাচক দিক। এখন যে ভুল করছে, আশা করি সামনে সেটি সে করবে না।’তিনি আরো বলেন আমি আশাবাদী বিশ্বকাপের ম্যাচেও সে নিরাশ করবে নাহ।