বন্ধুর বউকে কৌশলে বাসায় ডেকে গণধর্ষণ – পড়ুন বিস্তারিতঃ–

বন্ধুর বউকে বাসায় ডেকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পিরোজপুর সদর উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের বটতলার এক বাসায় এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে পিরোজপুর সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। মামলায় স্বামী ও তার বন্ধু এবং সহযোগীদের আসামি করা হয়েছে।

নির্যাতিত ওই গৃহবধূ জানান, ঢাকায় বসবাসকালে প্রায় দুই বছর আগে এক সন্তানসহ তাকে বিয়ে করেন পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার অজয়। অজয় হিন্দু হলেও বিয়ের সময় মুসলমান বলে পরিচয় দেন। বিয়ের তিন মাস পর ওই গৃহবধূকে ফেলে নাজিরপুরে চলে যান অজয়।

সম্প্রতি অজয়ের বন্ধু লিটন ফোনে গৃহবধূকে জানান, তার স্বামী অন্যত্র বিয়ে করছেন। পাশাপাশি অজয়কে এ থেকে ফিরিয়ে আনার আশ্বাস দিয়ে বন্ধুর বউকে কৌশলে ঢাকা থেকে পিরোজপুরে নিয়ে যায় লিটন।

মঙ্গলবার ভোরে বাসযোগে আড়াই বছর বয়সী কন্যা সন্তানকে নিয়ে পিরোজপুরে যান গৃহবধূ। এরপর লিটনের সঙ্গে তাদের বাসায় যান। মঙ্গলবার রাতে অজয়ের সঙ্গে দেখা করার কথা বলে একটি নির্জন বাসায় গৃহবধূকে নিয়ে যায় লিটন। এরপর রাতভর গৃহবধূকে সেখানে ধর্ষণ করে। পরের দিন সকালে স্থানীয়দের সহায়তায় পিরোজপুর সদর থানায় পৌঁছে লিটন ও স্বামী এবং সহযোগীদের আসামি করে মামলা করেন গৃহবধূ।

পিরোজপুর সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম জিয়াউল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বিডি২৪লাইভকে জানান, ‘ইতিমধ্যে আমরা অভিযোগ পেয়েছি। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। পিরোজপুর সদর হাসপাতালে অভিযুক্ত মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।’