হোটেলে গোসল করার আগে সাবধান! বড় খেসারত দিতে হলো তরুণীকে

হোটেলে লুকিয়ে চরম বিপদ। বন্ধুর সঙ্গে হোটেলে গিয়ে বিপাকে পড়লেন চিকিৎসক।







এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঘটনার সূত্রপাত সপ্তাহ খানেক আগে। পেশায় চিকিৎসক এক তরুণী বন্ধুর সঙ্গে দুপুর নাগাদ দিল্লির মাহিপালপুরের একটি হোটেলে ওঠেন। পরে গোসল করতে যাওয়ার সময়ে ওই তরুণী জানলার পিছনে ফিসফিস আওয়াজ শুনতে পান। ভয় পেয়ে জানলা বন্ধ করতেই তিনি জানলার পাশেই সন্দেহজনক একটি কালো রঙয়ের বস্তু দেখতে পান। ভয়ে বাথরুম থেকে বেরিয়ে গোটা বিষয়টি তাঁর ওই বন্ধুকে জানান। ওই তরুণীর বন্ধু জানলা কাছে থেকে একটি কালো রঙয়ের মোবাইল উদ্ধার করে।







অভিযোগকারিনী ওই তরুণীর দাবি, তাঁদের ঠিক পাশের ঘরেই এক যুবক ও যুবতী ছিলেন। গোটা ঘটনায় তাদের যোগ থাকতে পারে বলেও অভিযোগ করেন ওই তরুণী।

পরে ওই তরুণী হোটেল ম্যানেজারকে গোটা ঘটনা জানান। হোটেল ম্যানেজার ওই যুবকের মোবাইল পরীক্ষা করেও কিছুই পাননি বলে জানা গিয়েছে। তবে চিকিৎসক ওই তরুণী অভিযোগে অনড় তাঁদের পাশের রুমের ওই যুবতীই ভিডিও করে পরে তা ডিলিট করে দেয়।







ইতিমধ্যে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে দিল্লি পুলিশ। ওই হোটেলের সমস্ত কর্মী ও গেস্টদের মোবাইল ফোন রেকর্ড পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে বলে খবর।