জ্বীন দেখেছেন কখনো ?? দেখুন জ্বীন কিভাবে ছাড়ানো হয় (ভিডিও)

জ্বীন দেখেছেন কখনো ?? দেখুন জ্বীন কিভাবে ছাড়ানো হয় (ভিডিও)













আরো পড়ুন…

আইপিএল টিকিট বিক্রি নিয়ে যা বললেন সৌরভ

সদ্য আইপিএল ম্যাচের টিকিট বিক্রি নিয়ে প্রশ্ন তোলার জন্য সাংবাদিক বৈঠক ডেকেছিল কলকাতা নাগরিক মঞ্চ। তাদের অভিযোগ করার সাংবাদিক বৈঠকে ঢুকে পড়েই সিএবি প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলির নামে জয়ধ্বনি দিলেন তাঁর ভক্তরা!

নাটকীয় এরকম কাণ্ডই শনিবার দেখা গেল কলকাতা ক্রীড়া সাংবাদিক ক্লাবে। নাগরিক মঞ্চের তরফে সোমা গুহ, আশিস হালদার’রা অভিযোগ করেন, ৯ মে কেকেআর-মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ম্যাচের টিকিট কাটতে চেয়েও পাননি তাঁরা। টিকিটের কালোবাজারি, বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই টিকিট বিক্রি, অনলাইনে টিকিট বিভ্রাট— এরকম একাধিক অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা। পাশাপাশি একটি খামের ছবি দেখিয়ে দাবি করেছেন, সিএবি’র এক কর্তা টাকার বিনিময়ে ৫০টি টিকিট একাই কিনেছিলেন। গোটা ব্যাপারটা বোর্ডের প্রশাসকদের কমিটির প্রধান বিনোদ রাইকে জানিয়েছেন বলেও দাবি করেন তাঁরা।













পাল্টা প্রশ্নের মুখে অবশ্য অস্বস্তিতেই পড়ে যান মঞ্চের সদস্যেরা। সিএবি থেকে আগেই জানানো হয়েছিল যে, আইপিএলের টিকিট বিক্রি করে কেকেআর। তাহলে কেকেআরকে না জানিয়ে সিএবি’র দিকে আঙুল তোলা হচ্ছে কেন? অভিযোগকারীরা বলেন, তাঁরা কেকেআরের কাউকে ব্যক্তিগতভাবে চেনেন না। তাহলে বোর্ডের প্রশাসকদের কমিটির সঙ্গে যোগাযোগ করলেন কীভাবে? সদুত্তর দিতে পারেননি কেউই। মহমেডান মাঠে কেকেআর-মুম্বই ম্যাচের টিকিট বিক্রির লাইনে পুলিশের লাঠিচার্জ নিয়েও সিএবি’র দিকে আঙুল তোলা হয়। কলকাতা পুলিশের কমিশনারকে জানিয়েছেন? অভিযোগকারীরা বলেন, তাঁরা জানাবেন। বৈঠকের ফাঁকে কয়েকজন সৌরভ ভক্ত তাঁর নামে জয়ধ্বনি দিতে শুরু করেন। সৌরভকে কলঙ্কিত করার চেষ্টা চলছে বলে তাঁরা পাল্টা অভিযোগ করেন।







গোটা ঘটনার পিছনে অনেকেই সৌরভ বনাম বিশ্বরূপ দে-সুবীর গাঙ্গুলির বিরোধী গোষ্ঠীর বিবাদের ছায়া দেখছেন। সাংবাদিক বৈঠকে সিএবি’র চিফ এগজিকিউটিভ অফিসার ও কেকেআরের সঙ্গে জড়িত এক সিএবি কর্তাও ছিলেন। সৌরভ নিজে ব্যক্তিগত কাজে দিল্লিতে ছিলেন। প্রতিক্রিয়া চাওয়া হলে তিনি বললেন, ‘‘সিএবি আইপিএলের টিকিট বিক্রি করে না। করে কেকেআর। কিছু বলার থাকলে কেকেআরকে বলা উচিত।’’