খুন হওয়া চেয়ারম্যানের স্ত্রীকে বিজয়ী করে সহানুভুতি প্রকাশ

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নীনা ইয়াছমিন বিজয়ী হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৫ মে) বিকেল ৪টা পর্যন্ত সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী নীনা ইয়াছমিন (নৌকা) ৫ হাজার ৫৩৫ পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লতিফুর হত্যা মামলার আসামি ও দিঘলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি স. ম ওহিদুর রহমান (আনারস) পেয়েছেন ৩ হাজার ১৩৪ ভোট, জাতীয় শ্রমিক লীগের লোহাগড়া উপজেলার সহ সভাপতি মো. সাহিদুল আলম (চশমা) পেয়েছেন ১ হাজার ৮০২ ভোট এবং বিএনপি মনোনীত প্রার্থী এস এম মাকছুদুল হক ৩২৮ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে স্থানীয়দের ধারণা নিহত জনপ্রিয় চেয়ারম্যান পলাশের স্ত্রী এলাকাবাসীর সহানুভূতি ও নারী ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দুপুরে লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে দিঘলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক লতিফুর রহমান পলাশকে (৪৮) গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। গত ৮ এপ্রিল দিঘলিয়া ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়।