যে সব প্রবাসীরা ব্যাংকে নগদ বা ফিক্সড ডিপোজিট করেছেন তাদের জন্য জরুরী পোষ্ট !!

প্রবাসীরা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে লাখ লাখ টাকা বাংলাদেশের অনেক ব্যাংকে রাখছেন, অনেকে ফিক্সড ডিপোজিট করে রেখেছেন। কিন্তু আপনার টাকা কতটুকু নিরাপদ, তা কি জানেন?

একাউন্ট বা ফিক্সড ডিপোজিট করে রাখার পরও আপনার কিছু বিষয়ে সর্তক থাকা উচিত। কারন বিভিন্ন ব্যাংকে প্রবাসীদের টাকা নয়-ছয় হচ্ছে মর্মেখবর বেরিয়েছে।নিচের টিপসগুলো মেনে চললে আপনার টাকা থাকবে বেশ নিরাপদ।

১. অবশ্যই আপনার ব্যাংক একাউন্টটিতে যাতে ইন্টারনেট ব্যাংকিং সিস্টেম থাকে এবং আপনি সেটি চালু করে নিন, তাহলে বিশ্বের যেকোন স্থান থেকে আপনার একাউন্টের স্টেটমেন্ট সরাসরি দেখতে পারবেন।

২. আপনার চেক বুক, ডেবিট ক্রেডিট কার্ড নিরাপদ ব্যাক্তির কাছে রেখে আসুন বা আপনার কাছে রাখুন। অথবা, ব্যাংকে দরখাস্ত করে রাখুন আপনি ছাড়া যেন কোন লেনদেন করা না হয়। দরখাস্তের দুটি কপি করে তাতে ব্যাংক ম্যানেজারের সিগনেচার রেখে একটি আপনার কোছে রাখুন।

৩. আপনার একাউন্ট কিংবা ফিক্সড ডিপোজিটের অপজিটে আপনার একটি হোয়াটস আপ, ইমু, মেসেঞ্জার বা যেকোন সময় যোগাযোগের উপযোগী যেকোন একটি নাম্বার দিয়ে রাখুন ৪. আপনার একাউন্ট এ কত টাকা আছে বা ফিক্সড ডিপোজিটের যেকোন অবস্থান জানার জন্য আপনার বিশ্বস্ত কাউকে দায়িত্ব দিতে পারেন। এ কাজটি ব্যাংকে দরখাস্ত করে চালু করতে পারেন।

যাতে টাকার কোন হেরফের হলে আপনাকে দ্রুত জানাতে পারে। কারন আজকাল ব্যাংকের ভেতরকার অনেক কর্মকর্তা টাকা চুরির সঙ্গে জড়িত মর্মে খবর বেরিয়েছে।

সম্প্রতি প্রবাসে থাকা এক ব্যাক্তির একাউন্ট থেকে কয়েক লাখ টাকা চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ে প্রতারক চক্র। তাছাড়া চেক জালিয়াতিসহ নানাভাবে প্রবাসীদের একাউন্টের টাকা খোয়া যাচ্ছে।