ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাজ করলে বাড়ে যে রোগের ঝুঁকি

ণ্টার পর ঘণ্টা কাজ- স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি সময় ধরে কাজ করলে অবধারিতভাবেই কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেয়। এর মাঝে রয়েছে উচ্চমাত্রার স্ট্রেস এবং কিছু রোগের ঝুঁকি। কানাডার এক গবেষণায় দেখা গেছে, লম্বা সময় কাজ করলে বাড়ে টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি। খবর টাইম।

টরন্টোর ইনস্টিটিউট ফর ওয়ার্ক অ্যান্ড হেলথের গবেষক মাহি গিলবার্ট-উইমেট এবং তার সহকর্মীরা সাত হাজারেরও বেশি মানুষের ১২ বছরের তথ্য সংগ্রহ করেন। বিএমজে ডায়াবেটিস রিসার্চ অ্যান্ড কেয়ার জার্নালে প্রকাশিত এ গবেষণায় বলা হয়, নারীরা সপ্তাহে ৩৫-৪০ ঘণ্টা কাজ করলে ডায়াবেটিসের যে ঝুঁকি থাকে, ৪৫ ঘণ্টা বা তার বেশি কাজ করলে এ ঝুঁকি বাড়ে ৫১ শতাংশ। মূলত বেশি সময় কাজ করলে স্ট্রেস বাড়ে বলে তা দেখা যায়।

তবে পুরুষের মাঝে এ ব্যাপারটি দেখা যায় না। এমনকি, পুরুষরা বেশি সময় ধরে কাজ করলে তাদের ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমে।

এ বিষয়ে গবেষক গিলবার্ট-উইমেট জানান, কর্মজীবী নারীকে বাড়িতেও অনেক কাজ করতে হয়। এর পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে বেশি সময় কাজ করলে স্বাস্থ্যের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। পুরুষকে যেহেতু বাড়িতে তুলনামূলক কম কাজ করতে দেখা যায়, তাদের ওপর প্রভাবটি আলাদা।

দেখা যায়, বাড়িতে ১২ বছরের কম বয়সী শিশু আছে এমন নারীরা সপ্তাহে ৪৫ ঘণ্টার বেশি কাজ করলে ঝুঁকিতে থাকেন।

অবশ্য কাজের ধরনের ওপরেও এ ঝুঁকি নির্ভর করে। পুরুষরা বেশিরভাগ সময়েই এমন সব কাজ করেন যাতে কিছু শারীরিক সক্রিয়তার সুযোগ রয়েছে। কিন্তু নারীরা সাধারণত এমন সব ক্ষেত্রে কাজ করেন যেখানে সারাদিন বসেই থাকতে হয়। এ কারণেও বাড়ে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি।