Wednesday , September 18 2019

আন্দোলন করে স্বামীদেরই কোচ হিসেবে পেলেন শাটলার শাপলা-এলিনা

কোচ পছন্দ না হওয়ায় বেঁকে বসেছিলেন দেশ সেরা দুই নারী শাটলার শাপলা আক্তার ও এলিনা সুলতানা। মা’রুফ আলম ও গৌতম চন্দ্র পালকে ফেডারেশন কোচ নিয়োগ দেয়ায় এসএ গেমসের ক্যাম্পে যোগ দেননি জাতীয় চ্যাম্পিয়ন শাপলা আক্তার ও সামা’র চ্যাম্পিয়ন এলিনা সুলতানা।

তারা পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছিলেন কোচ না বদলালে ক্যাম্পে যোগ দেবেন না, এসএ গেমসেও অংশ নেবেন না। তাদের যুক্তি ছিল দুই কোচই অনভিজ্ঞ, তাদের কাছে শেখার কিছু নেই।

শুধু মিডিয়ায় নিজেদের সিদ্ধান্তের কথাই জানাননি দুই নারী শাটলার। ফেডারেশনের সভাপতিকে চিঠি দিয়েও তাদের আলটিমেটাম জানিয়ে দিয়েছিলেন। পরে সভাপতি দুই শাটলারের ডেকে তাদের বক্তব্য শুনেছেন।

আ’ন্দোলনে সফল হয়েছে শাপলা আক্তার ও এলিনা সুলতানার। ফেডারেশনের সভাপতি আবদুল মালেক দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছেন। আজ (রোববার) শাপলা-এলিনাদের কোচও পাল্টে দিয়েছে ফেডারেশন।

ক্যাম্পে নারী দলের কোচ নিয়োগ পেয়েছেন সাবেক দুই শাটলার ওহিদুজ্জামান রাজু ও সাবেক জাতীয় চ্যাম্পিয়ন এনায়েত উল্লাহ খান। নতুন নিয়োগ পাওয়া কোচ ওহিদুজ্জামান রাজু হলেন শাপলা আক্তারের স্বামী এবং এনায়েত উল্লাহ খান হলেন এলিনা সুলতানার স্বামী।

তাদের আ’ন্দোলন অবশ্য স্বামীদের কোচ হিসেবে পাওয়ার জন্য ছিল না। তারা চেয়েছিলেন আগে যাদের কাছে অনুশীলন করেছেন তাদের কোচ হিসেবে পেতে। তবে তারা এটা জানতেন, কোচ বদলে স্থানীয় কাউকে নিয়োগ দিলে রাজু-এনায়েতকেই দিতে হবে। কারণ, দেশে তাদের বিকল্প নেই। তাইতো এক ঢিলে দুই পাখি মা’রা হলো শাপলা-এলিনার।

তবে কোচ পছন্দ না হওয়ায় দুই নারী শাটলারের আ’ন্দোলন ভালো চোখে দেখেনি তাদের অনেক পূর্বসূরি। এটা যে আগামীর জন্য খা’রাপ উদাহরণ হয়ে থাকলো।

কোচ মা’রুফ আলম ও গৌতম চন্দ্র পালকে নারীদের কোচ থেকে সরিয়ে পুরুষ দলের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন বাহার গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘সভাপতির নির্দেশক্রমে কোচ বদল করা হয়েছে, তাছাড়া শাপলা ও এলিনার চাওয়াও ছিল এটিই।’